মেনু নির্বাচন করুন

এক নজরে মুন্সিরহাট ইউনিয়ন পরিষদ

এক নজরে মুন্সিরহাট ইউনিয়ন পরিষদ

ফেনী জেলার ফুলগাজী উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী অঞ্চল হলো মুন্সীরহাট, যা বর্তমানে মুন্সীরহাট ইউনিয়ন নামে পরিচিত । আয়তনের দিক থেকে ও জনসংখ্যার দিক থেকে এই ইউনিয়নটি ফুলগাজী উপজেলার সবচেয়ে বড় ইউনিয়ন পরিষদ। কাল পরিক্রমায় আজ মুন্সীরহাট ইউনিয়ন শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, খেলাধুলা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার নিজস্ব স্বকীয়তা আজও সমুজ্জ্বল হয়ে রয়েছে। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে এই ইউনিয়নের আপাময় জনতা বিরাট ভূমিকা পালন করেন। বীর বিক্রম জাফর ইমাম এই ইউনিয়নের নোয়াপুর গ্রামের সন্তান।

ক) নাম –  মুন্সীরহাট  ইউনিয়ন পরিষদ।

খ) আয়তন –   ১৫  (বর্গ কিঃ মিঃ)

গ) লোকসংখ্যা –  ৩১,০০০  জন (প্রায়) (২০১১ সালের আদম শুমারি অনুযায়ী)

ঘ) গ্রামের সংখ্যা – ১৮  টি।

ঙ) মৌজার সংখ্যা – ১৮ টি।

চ) হাট/বাজার সংখ্যা – বড় ছোট মিলে মোট-২০টি।

ছ) উপজেলা সদর থেকে যোগাযোগ মাধ্যম –বাসে, সিএনজি ও রিক্সা।

জ) শিক্ষার হার –  ৮৫%   (২০০১ এর শিক্ষা জরীপ অনুযায়ী)

ঝ) সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়- ১৮ টি,

ঞ) বে-সরকারী রেজিঃ প্রাঃ বিদ্যালয়-১০ টি,     

 ট) উচ্চ বিদ্যালয়ঃ -৬ টি,

ঠ) মাদ্রাসা- ৮ টি।

ঝ) দায়িত্বরত চেয়ারম্যান –জনাব হানিফ আহম্মদ মজুমদার (বাবু)

ঞ) গুরুত্বর্পূণ ধর্মীয় স্থান- ৪ টি। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য বদরপুরে অবস্থিত ১৯২০ সালের তৈরি মসজিদ। যা এলাকার প্রাচীনতম ধর্মীয় স্থান হিসাবে বিবেচিত।

ট) ঐতিহাসিক/পর্যটন স্থান –৩ টি । ভারতের ত্রিপুরা থেকে প্রভাহীত সিলোনীয়া নদীর দুপাশের মনোরম পরিবেশ এলাকার মানুষের মনে এনে অনাবিল শান্তি।

ঠ) ইউপি ভবন স্থাপন কাল –১৯৭৩ ইং।

ড) নব গঠিত পরিষদের বিবরণ –

                                    ১) শপথ গ্রহণের তারিখ –২৪-০৮-২০১১ইং

                                    ২) প্রথম সভার তারিখ –২৫-০৯-২০১১ইং

                                   ৩) মেয়াদ উর্ত্তীনের তারিথ –২৪-০৮-২০১৫ইং

ঢ) গ্রাম সমূহের নাম –  মান্দারপুর, বদরপুর, করইয়া, কালিকাপুর, নোয়াপুর, কামল্লা, পৈথারা, জামমুড়া, ফকিরের খিল, দক্ষিন তারালিয়া, কমুয়া, বালুয়া, চাঁনপুর, দক্ষিন শ্রীপুর, কুতুবপুর, আনন্দপুর, মজুমদার গ্রাম, ফতেপুর ইত্যাদি ।

                      

ণ) ইউনিয়ন পরিষদ জনবল –মোট ১৭ জন।

               ১) নির্বাচিত পরিষদ সদস্য – ১২ জন (সংরক্ষিত মহিলা সদস্যসহ)।

               ২) ইউনিয়ন পরিষদ সচিব – ১ জন।

              ৩) ইউনিয়ন গ্রাম পুলিশ – ৪ জন।